1. ayanabirbd@gmail.com : সামিয়া মাহজাবিন :
শুক্রবার, ০৭ অগাস্ট ২০২০, ০৯:০৯ পূর্বাহ্ন

নরসিংদীর শিবপুরে শহীদ আসাদ দিবস পালন

মোঃ রফিকুল ইসলাম
  • আপডেট টাইম :: সোমবার, ২০ জানুয়ারী, ২০২০

আজ ২০ জানুয়ারি, শহীদ আসাদ দিবস। ১৯৬৯ সালের এই দিনে স্বৈরাচারী আইয়ুব বিরোধী গণ আন্দোলনের সময় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সামনে বুকে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রনেতা আসাদ।


আসাদের পুরো নাম আমানুল্লাহ মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান। মৃত্যুর পর গ্রামের বাড়ি নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার ধানুয়া গ্রামে তাকে সমাহিত করা হয়। কিন্তু বর্তমানে সেখানে তার নিকটাত্মীয়দের কেউ থাকেন না। ফলে তার কবরটি চরম অযত্নে ও অবহেলায় পড়ে আছে। সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগের অভাবে নতুন প্রজন্ম ভুলতে বসেছে মহান আসাদের বীরত্বগাথা। নিজ বাড়ির বকুলতলায় কবর শহীদ আসাদের। অযত্নে-অবহেলায় তার সমাধিতে শ্যাওলা জমেছে। কেবলমাত্র আসাদ দিবসের আগে তার সমাধিটি পরিষ্কার করা হয়। কিন্তু সারাবছর এটির কোনো খোঁজখবর থাকে না।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, শিবপুরে আসাদের নামে দুটি স্কুল-কলেজ থাকায় সাধারণ মানুষের কাছে নামটি পরিচিত। তবে তার মৃত্যুর ইতিহাস ও আসাদ দিবসের ব্যাপারটি বেশিরভাগ মানুষের কাছেই অজানা। বরাবরের মতো এবারও আসাদ দিবস স্মরণে শিবপুরে কোনো আয়োজন নেই। ঊনসত্তুরের গণঅভ্যুত্থানের এ নায়কের নামে শিবপুর কলেজের নামকরণ করা হয় শিবপুর সরকারি শহীদ আসাদ কলেজ। সেই কলেজের শিক্ষার্থীদের কাছেও শহীদ আসাদ সম্পর্কে জানতে চাইলে হতাশ হতে হয়। বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই স্বাধীনতা সংগ্রামে শহীদ আসাদের ভূমিকা সঠিকভাবে জানে না। সকাল সাড়ে ১০টায় কলেজ অডিটরিয়ামে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

আসাদের মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান, নরসিংদী জেলা বিএনপির সহ সভাপতি মন্জুর এলাহী, শিবপুর সরকারী শহীদ আসাদ কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো: মতিউর রহমান (ভারপ্রাপ্ত) শিবপুর শহীদ আসাদ কলেজিয়েট গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আবুল হারিছ রিকাবদার, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান মিন্টু, নরসিংদী জেলা ছাত্রদল, শিবপুর উপজেলা ছাত্রদল, শিবপুর সরকারী শহীদ আসাদ কলেজ শাখা ছাত্রলীগ ও ছাত্রদল, বাংলাদেশ ছাত্রফেডারেশন, জাতীয় মুক্তিকাউন্সিল, শিবপুর আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজসহ বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান।

এছাড়া শহীদ আসাদের ছোট ভাই ডা. নুরুজ্জামান পরিবারের পক্ষ থেকে শীর্তাতদের মাঝে কম্বল বিতরণ ও ব্লাড ব্যাংক ফাউন্ডেশন কর্তৃক ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং করা হয়। শহীদ আসাদ ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের ছাত্র। তিনি তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়নের (মেনন গ্রুপ) ঢাকা হল শাখার সভাপতি ছিলেন। ১৯৬৯ সালের ২০ জানুয়ারি স্বৈরাচারী আইয়ুব খান সরকারবিরোধী আন্দোলনের সময় বুকে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন তিনি। এরপর থেকেই এ দিনটি শহীদ আসাদ দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে। শিবপুর শহীদ আসাদ কলেজিয়েট গার্লস হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ আবুল হারিছ রিকাবদার (কালা মিয়া) বলেন, শহীদ আসাদ আমাদের এলাকার সন্তান। এটা আমাদের গর্ব।

গণঅভ্যুত্থানে আসাদের আত্মত্যাগের পথ ধরেই আমাদের দেশে মুক্তিযুদ্ধের পথ সুগম হয়েছিল। কিন্তু আসাদ দিবসে শুধু তার সমাধিতে ফুল দেওয়া আর আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়, এগুলো তার অবদানের তুলনায় নগণ্য। শহীদ আসাদের ছোট ভাই ডা. এ এম নূরুজ্জামান নুর বলেন, শহীদ আসাদ বিপ্লবী নেতা ছিলেন। তাকে যেভাবে তুল ধরা দরকার ছিল তা হয়নি। ফলে আসাদ সম্পর্কে দেশের মানুষ জানে না। আসাদ দিবসেই শুধু তাকে কেন্দ্র করে কিছু আলোচনা হয়। নতুন প্রজন্মের কাছে আসাদ এক অপরিচিত ব্যক্তি। কিন্তু যাদের কারণে আজকের স্বাধীন বাংলাদেশ, আসাদ তাদের একজন। আসাদ পরিষদ সূত্র জানায়, দিবসটি উপলক্ষে শহীদ আসাদ পরিষদ নরসিংদীর শিবপুরের ধানুয়ায় প্রভাতফেরি, শহীদের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো ও দুস্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ করবে। পরে শিবপুর সরকারি শহীদ আসাদ কলেজে দিবসটি উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

উল্লেখ্য ৬৯ এর ২০ জানুয়ারী তৎকালীন স্বৈরাচারী আইয়ুব সরকারের বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক ১১ দফা আন্দোলনের হরতাল চলাকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজের সামনে (চাঁনখারপুল) পুলিশের গুলিতে তিনি নিহত হন।


@ UTV সাইটে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর