ঢাকাসোমবার , ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
  1. অর্থনীতি
  2. আইন আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আবহাওয়া
  5. ইউ কৃষি
  6. ইউ মিউজিক
  7. ইউ স্পোর্টস
  8. ইউটিভি পরিবার
  9. ইয়ুথ ব্লেন্ড
  10. উদোক্তা
  11. উৎসব
  12. এককাপ চা
  13. এক্সক্লুসিভ
  14. খেলা
  15. গণমাধ্যম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

একজনকে নিয়ে গেছে বিজিবি ক্যাম্পে:
ট্রেনে তল্লাশীর ছবি তোলায় দুই পুলিশ সদস্যকে পিটিয়ে জখম

প্রতিবেদক
আইউব হোসেন পক্ষী, শার্শা প্রতিনিধি
সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২২ ৮:৩৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ভারতের কলকাতা এবং বাংলাদেশের খুলনার মধ্যে চলাচলকারী ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’ ট্রেনে তল্লাশী চালানোর ছবি তোলায় খুলনা রেলওয়ে জেলা পুলিশের এক সদস্যকে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে।
রোববার যশোরের বেনাপোল রেলস্টেশনে মারধরের পর বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে (বিজিবি) সদস্যরা তাকে ক্যাম্পে নিয়ে গেছে। ওই পুলিশ সদস্যের নাম মনিরুল ইসলাম(২৮)।
এ সময় তাকে রক্ষা করতে গিয়ে মারধরের শিকার হয়েছেন বেনাপোল রেলওয়ে পুলিশের (জিআরপি) উপপরিদর্শক (এসআই) শেতাফুর রহমান (৫৩)।
এসআই শেতাফুর রহমান বেনাপোল রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত আছেন। মনিরুল ইসলাম খুলনা রেলওয়ে জেলা বিশেষ শাখায় কর্মরত।
বেনাপোল রেলওয়ে সূত্র জানায়, ভারতের কলকাতার চিৎপুর রেলস্টশন থেকে খুলনার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি আজ সকাল ১০টা পাঁচ মিনিটে বেনাপোল স্টেশনে পৌঁছায়। যাত্রীদের ইমিগ্রেশন ও কাস্টমসের আনুষ্ঠানিকতা শেষে সকাল ১১টা ২০ মিনিটে ট্রেনটি খুলনার উদ্দ্যেশে বেনাপোল রেলস্টেশন ছেড়ে যায়।
রেলওয়ে পুলিশের একটি সূত্র জানায়, আজ সকালে ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি বেনাপোল স্টেশনে এসে পৌঁছানোর পর বিজিবি সদস্যরা ট্রেনে তল্রাশী চালানোর প্রস্তুুতি নেয়। এ সময় রেলওয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে কাস্টমস কর্মকর্তা ছাড়া ট্রেনে যাত্রীদের লাগেজ তল্লাশী করা যাবে না বলা হয়। এসময় সাদা পোশাকে পাশে দাঁড়িয়ে মুঠোফোনে ছবি তুলছিলেন মনিরুল ইসলাম। এরপর বিজিবি সদস্যরা তাকে মারধর করেন। পরে বিজিবি সদস্যরা মনিরুলকে তাদের গাড়িতে তুলে বেনাপোল বিজিবি ক্যাম্পে নিয়ে যায়।
এসময় তাকে রক্ষা করতে এগিয়ে গেলে বিজিবি সদস্যরা সেতাফুর রহমানকে মারধর করেন। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে চিকিৎসা নিয়ে বিকেলে তিনি ফাঁড়িতে ফেরেন। তবে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত মনিরুল ইসলাম বিজিবি ক্যাম্পে ছিলেন।
যোগাযোগ করা হলে খুলনা রেলওয়ে পুলিশ সুপার মো. রবিউল হাসান বলেন, বিষয়টি তিনি জানেন না।
যশোর ৪৯ বিজিবির কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল শাহেদ মিনহাজ ছিদ্দিকী জাানান, সামান্য ঘটনায় উভয়ের মাঝে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। বিয়য়টি দ্রুত মিমাংসা হয়ে যাবে।