ঢাকামঙ্গলবার , ৩০ নভেম্বর ২০২১
  1. অর্থনীতি
  2. আইন আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আবহাওয়া
  5. ইউ কৃষি
  6. ইউ মিউজিক
  7. ইউ স্পোর্টস
  8. ইউটিভি পরিবার
  9. ইয়ুথ ব্লেন্ড
  10. উদোক্তা
  11. উৎসব
  12. এককাপ চা
  13. এক্সক্লুসিভ
  14. খেলা
  15. গণমাধ্যম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ওমিক্রন, বিশ্ব দুয়ার বন্ধ হল

প্রতিবেদক
অনিরুদ্ধ হাসান
নভেম্বর ৩০, ২০২১ ৮:৫০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!


  • সংক্রমণ ১৭ দেশে ছড়িয়েছে
  • অত্যন্ত বিপজ্জনক, প্রস্তুতি নিন : ডব্লিউএইচও
  • আবিষ্কার করে মহাবিপদে দক্ষিণ আফ্রিকা
  • ১৮ দেশের ওমরাহ পালনে নিষেধাজ্ঞা

দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ‘ওমিক্রন’ শনাক্ত হওয়ার পর বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। ইতোমধ্যে ১৭টি দেশে এই ধরন পৌঁছে যাওয়ায় বাংলাদেশসহ অনেক দেশ ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা এবং বিমান চলাচলে বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন দেশ বন্ধ করে দিচ্ছে তাদের দরজা।


টিকাদানের ফলে বিশ্ব বাজারে প্রায় দুই বছরের স্থবিরতা কাটতে শুরু করেছিল, কিন্তু নতুন ভ্যারিয়েন্টের কারণে আবারও থমকে যাওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। বিনিয়োগকারীরা এখনো নতুন ভ্যারিয়েন্টের বিশদ জানার অপেক্ষায় প্রহর গুণছেন। জাপান গতকাল বলেছে, তারা বিদেশিদের জন্য সীমান্ত বন্ধ করছে। বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির এ দেশটি করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া ইসরাইলের পথে হেঁটেছে।

অন্যদিকে, অস্ট্রেলিয়ার দুয়ার পুনরায় খুলে যাওয়ার পরিকল্পনা নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। সউদী আরব ৭ দেশের ওপর থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার কয়েক দিনের মধ্যেই আগামী ৪ ডিসেম্বর থেকে বিশ্বের সকল দেশের জন্য দেশের বিমানবন্দরগুলো উন্মুক্ত করার ঘোষণা দেবার মাত্র দু’দিন পর ফের ১৮ দেশের ওপর ওমরাহ পালনে আগমনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

আরব আমিরাতও দক্ষিণ আফ্রিকার ৭ দেশ থেকে ফ্লাইট স্থগিত ঘোষণা করেছে। মডার্না জানিয়েছে, তারা আগামী বছরের শুরুর দিকেই করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রমের টিকা বানাতে সমর্থ হবে। এদিকে দক্ষিণ আফ্রিকা নতুন ভ্যারিয়েন্ট আবিষ্কার করে ধন্যবাদের পরিবর্তে শাস্তি পাচ্ছে বলে অনুযোগ করেছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী। আগের সব ভ্যারিয়েন্টের তুলনায় সম্ভাব্য অতি-সংক্রামক ‘ওমিক্রন’ গত বুধবার দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম শনাক্ত হয়। এরপর থেকে আরো যে ১৬টি দেশে ওমিক্রন ছড়িয়েছে সেগুলো হচ্ছে, ইসরাইল, হংকং, বতসোয়ানা, অস্ট্রেলিয়া, ফ্রান্স, জার্মানি, যুক্তরাজ্য, কানাডা, ইতালি, সুইজারল্যান্ড, ডেনমার্ক, বেলজিয়াম, অস্ট্রিয়া, চেক প্রজাতন্ত্র, পর্তুগাল এবং নেদারল্যান্ড।

ওমিক্রনকে ‘উদ্বেগজনক ভ্যারিয়েন্ট’ হিসেবে তালিকাভুক্ত করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলেছে, ‘এই ভ্যারিয়েন্টের তীব্রতার মাত্রা বোঝার জন্য কয়েক দিন থেকে কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত লাগতে পারে।’

সবচেয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতি এড়াতে সতর্কতা হিসেবে জাপান আজ মঙ্গলবার রাত থেকে বিদেশিদের জন্য সীমান্ত বন্ধ করে দেবে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা। সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেছেন, জাপান প্রথমে বিদেশিদের প্রবেশ বন্ধ করবে। এছাড়া কিছু নির্দিষ্ট দেশ থেকে ফেরা জাপানিদের সরকার নির্ধারিত স্থাপনায় কোয়ারেন্টাইন পালন করতে হবে।

প্রথম ওমিক্রন রোগী শনাক্ত হওয়ার পর অস্ট্রেলিয়া বলেছে, তারা আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে দক্ষ অভিবাসী এবং শিক্ষার্থীদের জন্য সীমান্ত পুনরায় খুলে দেয়ার পরিকল্পনা পুনর্বিবেচনা করবে। সীমান্ত শিথিলতার বিষয়ে বুধবার দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা প্যানেলের বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেছেন, বিদেশি দর্শনার্থীদের জন্য এখনই দুই সপ্তাহের হোটেল কোয়ারেন্টাইন বিধি চালু করা হলে তা আগাম হয়ে যাবে। দেশটির স¤প্রচারমাধ্যম নাইন নিউজকে তিনি বলেনে, এ মুহূর্তে আমাদের কেবল একটি পদক্ষেপ নিতে হবে, সেটি হলো, সবাইকে শান্ত থাকতে হবে। সেই সঙ্গে সঠিক তথ্য পেয়ে সুচিন্তিত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে।

রোববার মরক্কোর সরকার বলেছে, ২৯ নভেম্বর থেকে পরবর্তী দুই সপ্তাহের জন্য আন্তর্জাতিক সব যাত্রীবাহী ফ্লাইটের অবতরণ বন্ধ থাকবে। কাতার, সউদী আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাতের মতো মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে টিকাগ্রহণকারীদের জন্য ভ্রমণ চালুর পরিকল্পনা পিছিয়ে দিয়েছে সিঙ্গাপুর। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই নগর-রাষ্ট্র এবং প্রতিবেশী মালয়েশিয়ার স্থল সীমান্ত পুনরায় খুলে দেওয়া হয়েছে। প্রায় দুই বছর ধরে বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত এই স্থল সীমান্ত বন্ধ রাখার পর স¤প্রতি টিকা নেওয়া দর্শনার্থীদের জন্য চালু করা হয়েছে। ব্রিটেন বলেছে, সোমবার জি৭ এর স্বাস্থ্যমন্ত্রীদের জরুরি বৈঠক ডাকবে তারা।

হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নতুন শনাক্ত ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন এবং যুক্তরাষ্ট্রের নেয়া পদক্ষেপের ব্যাপারে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে প্রতিনিয়ত হালনাগাদ তথ্য দেওয়া হচ্ছে।

ওমিক্রন অত্যন্ত বিপজ্জনক, প্রস্তুতি নিন : ডব্লিউএইচও
বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের রূপান্তরিত ধরন ওমিক্রন ‘অত্যন্ত উচ্চ ঝুঁকি’ তৈরি করতে পারে বলে গতকাল সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। পাশাপাশি ভাইরাসের এই ধরনকে মোকাবিলায় বিশ্বকে দ্রুত প্রস্তুতি নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে জাতিসংঘের স্বাস্থ্যবিষয়ক এই সংস্থা। গতকাল জেনেভায় ডব্লিউএইচওর সদর দফতর থেকে ওমিক্রন নিয়ে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে। বিবৃতিতে ১৯৪টি সদস্যদেশকে টিকাদান কর্মসূচির গতি আরো বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছে। সংক্রমণের নতুন ঢেউ দেখা দিলে কী ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে; সে বিষয়ে পরিকল্পনাও দ্রুত নেওয়ার তাগিদ দেওয়া হয়েছে।

মহাবিপদে দক্ষিণ আফ্রিকা
এদিকে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার তীব্র সমালোচনা করে দক্ষিণ আফ্রিকা বলেছে, বিশ্বের এ সিদ্ধান্ত অন্যায্য এবং দক্ষিণ আফ্রিকার অর্থনীতির জন্য ক্ষতিকর। দক্ষিণ আফ্রিকার নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত করার বৈজ্ঞানিক সক্ষমতাকে শাস্তি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে দেশটি।

ডেলটা রূপের আবিষ্কার হওয়ায় বদনাম কুড়িয়েছিল ভারত। আর করোনার শুরুটা চীনে হওয়ায় দেশটি একরকম বিপদেই পড়েছিল। মোটামুটি করোনার নতুন রূপ যেসব দেশে পাওয়া গেছে সেসব দেশই গত দুই বছর ধরে বিপদে পড়েছে। প্রথম দিকে করোনার নতুন ধরনের নাম দেশের নামেই হতো। কিন্তু ‘ভারতীয় ধরন’ যখন ভারতের সম্মানের জন্য ক্ষতিকর হয়ে দেখা দিল তখন ভারত ভ্যারিয়েন্টের অন্য কোনো নাম দেয়ার আবেদন জানায়। এরপর গ্রিক নামে ভ্যারিয়েন্টের নামকরণ করা হয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, ২০২০ সালের শেষ দিকে ভারতে শনাক্ত হওয়া ডেলটা রূপ বিশ্বের ১৬৩ দেশে সংক্রমণ ছড়িয়েছে। আক্রান্ত বেশ কয়েক কোটি মানুষ। দ্বিতীয় ঢেউয়ের জন্য দায়ী ছিল এই রূপ। দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে পাওয়া তথ্যমতে, ওমিক্রনের পক্ষে ডেলটার পরিসংখ্যানকে ছোঁয়ার পূর্বাভাস নেই। কেবল মানবদেহের সহজাত রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নয়। ওমিক্রনকে লড়াই করতে হবে করোনা টিকার প্রতিরোধের বিরুদ্ধেও। ডেলটা ধরনের সংক্রমণের সময় বিশ্ব জুড়ে টিকাকরণের সংখ্যা ছিল অনেক কম। এখন টিকাকরণ অনেকটাই এগিয়েছে। ফলে ওমিক্রনের পরীক্ষা আরো কঠিন।

এছাড়া গত এক বছরে টিকা সংক্রান্ত গবেষণাও এগিয়েছে অনেকটা। ফাইজার ও বায়োএনটেকের মতো সংস্থা ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছে, করোনা ভাইরাসের নয়া রূপ প্রতিরোধী টিকা তৈরির কাজ ৬ সপ্তাহের মধ্যে শুরু হবে। ১০০ দিনের মধ্যেই আসবে নতুন টিকা। সব মিলিয়ে এক বছর আগে ডেলটার ঢেউয়ের মোকাবিলার জন্য বিশ্ব যতটা প্রস্তুত ছিল, ওমিক্রন প্রতিরোধে প্রস্তুতি তার চেয়ে বেশি। আবার ডব্লিউএইচও দ্রুত উদ্বেগ জানিয়েছেন বলে অনেক বিজ্ঞানী মনে করছেন। যদিও এরও কারণ আছে। কারণ ডেলটা পাওয়ার পর ডব্লিউএইচও দ্রুত ব্যবস্থা না নেওয়ায় সমালোচনার মুখোমুখি হয়েছিল।

এক বিবৃতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কাজ করা হচ্ছে নতুন এই ধরনটি নিয়ে। এর সক্ষমতা ও কতদিন স্থায়ী হতে পারে, তা বিশ্লেষণ করে দেখা হচ্ছে। একই সঙ্গে ভ্যাকসিন নিয়েও আলোচনা করা হচ্ছে। ওমিক্রন প্রতিরোধে ভ্যাকসিন আনার কথা বলছে যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ কোম্পানি মডার্না। ২০২২ সালের শুরুতেই কোভিডের নতুন এই ধরন মোকাবিলায় টিকা তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

মডার্না ইনকরপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা পল বার্টন বলেন, বিদ্যমান ভ্যাকসিনগুলোকে ফাঁকি দিতে পারে করোনার এই নতুন ধরন। সে কারণে ২০২২ সালের শুরুতে নতুন করে ভ্যাকসিন আনবে প্রতিষ্ঠানটি।

জার্মানির বায়োএনটেক ও যুক্তরাষ্ট্রের ফাইজার বলেছে, তাদের টিকা পরিবর্তন করতে হবে কিনা তার জন্য দুই সপ্তাহের মধ্যে এ নতুন ধরনের বিষয়ে তথ্য পাওয়ার আশা করছে। মডার্না বলেছে, তারা নতুন এ ধরনের জন্য সুনির্দিষ্ট একটি বুস্টার ডোজ তৈরি করবে।

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান টেড্রোস আডানোম গেব্রিয়াসিস বলেছেন, ‘নতুন ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের বিস্তার হচ্ছে ভবিষ্যত মহামারি মোকাবিলায় আমাদের যৌথ সামর্থ্যরে পরীক্ষা।’ ওমিক্রন ইস্যুতে গতকাল সোমবার শুরু হওয়া বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরি অধিবেশনের উদ্বোধনে এসব কথা বলেন তিনি। তিন দিনের ওই অধিবেশনের শুরুতে টেড্রোস আডানোম গেব্রিয়াসিস বলেন, মহামারি অবসানের মূল হবে ‘সাহসী এবং সহানুভূতিশীল নেতৃত্ব’ এবং ‘পারস্পারিক সহমর্মিতার প্রতি অবিচল প্রতিশ্রুতি।’

ভ্যাকসিন বিতরণে বৈষম্যের কঠোর সমালোচনা করেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান। টেড্রোস আডানোম গেব্রিয়াসিস বলেন, ‘ভাইরাসটির বিস্তার এবং এর পরিবর্তন ঠেকাতে সব দেশেই টিকাদান জরুরি।’ ডবিøউএইচও প্রধান বলেন, ‘ভ্যাকসিন বৈষম্য যত বেশি থাকবে, তত বেশি উপায়ে ভাইরাসটি বিস্তৃত হবে যা আমরা আগে ধারণা করতে পারবো কিংবা রুখতে পারবো না। আমরা সকলেই একসূত্রে গাঁথা।’

ওমরাহ পালনে ১৮ দেশের নাগরিকের সউদী প্রবেশ নিষিদ্ধ
করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের কারণে ওমরাহ পালনে তুরস্কসহ ১৮ দেশের নাগরিকের সউদী প্রবেশ নিশেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। টিকা নেয়া থাকলেও তুরস্ক, লেবানন ও আফগানিস্তানসহ ১৮ দেশের নাগরিককে সউদী প্রবেশে নিষেজ্ঞা আরোপ করেছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা অন্য দেশগুলো হচ্ছে- মালাবি, জাম্বিয়া, মাদাগাস্কার, এঙ্গোলা, সিশেল, মরিশাস, কোমোরোস, দক্ষিণ আফ্রিকা, নামিবিয়া, বোতসোয়ানা, মোজাম্বিক, লেসোথু, ইউথুপিয়া ও এসওয়াতিনি।

আমিরাতে সাত দেশের ফ্লাইট স্থগিত
করোনার নতুন ধরনের সংক্রমণরোধে সাত দেশের সঙ্গে ফ্লাইট স্থগিত ঘোষণা করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। গতকাল থেকে এ স্থগিতাদেশ কার্যকর হয়েছে। ফ্লাইট স্থগিত করা সাত দেশ হলো- দক্ষিণ আফ্রিকা, নামিবিয়া, বতসোয়ানা, জিম্বাবুয়ে, মোজাম্বিক, লিসোথো ও এসওয়াতিনি।

ভারতে পৌঁছেছে ওমিক্রন?
ওমিক্রন আতঙ্কের মধ্যেই ভারতে কোভিড পজেটিভ হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা ফেরত এক ব্যক্তি। যদিও তিনি করোনার নয়া প্রজাতি ‘ওমিক্রন’-এ আক্রান্ত কিনা, সেই বিষয়ে এখনও নিশ্চিত করে কিছু জানা যায়নি। তবে তাঁকে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। আইসেলেশনে রয়েছে ওই ব্যক্তির পরিবারও। একইসঙ্গে গতকালই তাদের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ নভেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউন থেকে মহারাষ্ট্রের থানে জেলার দম্বিভালিতে ফেরেন ওই ব্যক্তি। দেখা যায়, তিনি কোভিড পজেটিভ।

থানের বাসিন্দা ওই ব্যক্তি দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফেরার পর থেকে এখনও পর্যন্ত কারো সংস্পর্শে আসেননি। তাঁকে আইসোলেশন সেন্টারে কোয়ারেন্টিন করে রাখা হয়েছে। এমনকি তার গোটা পরিবারও আইসোলেশনেই রয়েছে।